আজ তিনি নেই, তবু তিনি পাহাড়ের বসন্ত

Astrology Website

আজ তিনি নেই, তবু তিনি পাহাড়ের বসন্ত

 

 

আজ তিনি নেই, তবু তিনি পাহাড়ের বসন্ত|

শুভ জন্মদিন পাহাড়ী সান্যাল বাবু।

৩য়ে রাহু,

রাহুর অবস্থান ৩য়ে নিয়ে গতকাল আমাকে কোনো একজন প্রশ্ন করেছিলেন, ৩য়ে রাহুর অবস্থান এবং তার সাথে যদি রাহুর দশা পায় জাতক তাহলে সেই জাতকের উন্নতি ধরে রাখা কারোর ক্ষমতা হবে না।
৩য়ে থেকে যোগাযোগ বিচার করে থাকি আমরা, রাহু যদি সেই যোগাযোগের ভার নিয়ে থাকে তাহলে রাহুর দশায় জাতকের জীবনে আমূল পরিবর্তন আসতে বাধ্য।

Amarta Sen
Dhirubhai Ambani
Bankim ch chatterjee
Kalpona chawla
Charan Singh
Rajesh Khanna
Sunil Gavaskar
Harish Carpenter
Ashok Kumar
Ravi Sastri
Vivian Richards

এমন হাজার হাজার মানুষের জীবনের উদাহরণ দেওয়া যেতে পারে, যাদের জীবনে ৩য়ে রাহুর দশা, অন্তর দশাতে জীবনে আমূল পরিবর্তন হয়েছে।

দার্জিলিংবাসী পাহাড়ী এই দিলদার মানুষটি 1974 সালের মাত্র 67 বছর বয়সে মারা যান কলকাতায়। 1906 সালের 22শে ফেব্রুয়ারী দার্জিলিংয়ে জন্মগ্রহণ করেন নগেন্দ্রনাথ সান্যাল। পাহাড়ী এলাকায় জন্ম কর্ম এবং বসবাসের সুবাদে পরবর্তীকালে নামকরণ হয় পাহাড়ী সান্যাল। যে নাম স্বর্ণযুগীয় বাংলা ছায়াছবির অস্তিত্ব বহন করে চলেছে আজও। এই পাহাড়ী মানুষটির স্বভাব এবং অভিনয় গুণে মুগ্ধ হয়ে তাঁকে সম্মান জানাতে কিংবদন্তী চিত্রপরিচালক সত্যজিৎ রায় পাহাড়ী সান্যালকে কেন্দ্র করে ছবি বানালেন কাঞ্চনজঙ্ঘা। যে ছবি অমরত্ব লাভ করেছে বাংলা ছায়াছবির ইতিহাসে। বাস্তব ও অভিনয়কে এক সরলরেখায় অবস্থান করাতে পারতেন এই মহান অভিনেতা পাহাড়ী সান্যাল। 1933 সাল থেকে 1974 সাল অবধি আমৃত্যু ছিল তাঁর কর্মময় জীবনের পরিধি। তিনি ছিলেন বাংলা ছায়াছবির একজন অন্যতম চরিত্রাভিনেতা এবং সুগায়ক। বিদ্যাসাগর চরিত্রের জন্যে তিনি ছিলেন ওই সময়ের একমাত্র উপযুক্ত অভিনেতা। অগণিত বাংলা এবং হিন্দী ছায়াছবিতে সাবলীল অভিনয়ের তকমা এঁটে গেছেন পাহাড়ী সান্যাল। তাঁর অভিনীত ছবিগুলির ভেতর অন্যতম হারানো সুর,শাপমোচন,ভানু গোয়েন্দা জহর অ্যাসিসটেন্ট, শিল্পী, চন্ডীদাস,একা রূপলেখা, পূজারিণ, বিদ্যাপতি, রামায়ণী,দ্বীপ জ্বেলে যাই, চলাচল, বিদ্যাসাগর,বসু পরিবার, সদানন্দের মেলা,সবার উপরে,জীবন তৃষ্ণা, একদিন রাত্রে,দেয়া নেয়া, বিপাশা,নায়িকা সংবাদ, অরণ্যের দিনরাত্রি,রাজকুমারী, আরাধনা,সাথী,ইহুদি কি লেরকি,রাজরানী মীরা,ডাকু মনসুর, করোরপতি, মনজিল ইত্যাদি, রাজকাপুরের সঙ্গে তিনি কাজ করেছেন হিন্দী ছবি জাগতে রহো তে। মার্চেন্ট ইভারির ইংরাজী ছবি দ্য হাউসহোল্ডার এ অভিনয় করেছেন পাহাড়ী সান্যাল। 1974 সালে তাঁর অভিনীত শেষ ছবি রোদন ভরা বসন্ত। ব্যক্তিত্ব এবং কাজের প্রতি নিষ্ঠা এই দুটি বিষয়ের উপর পি.এইচ.ডি বা ডক্টরেট করেছিলেন তিনি। সমগ্র বাংলা ছবির দর্শক এবং পরিচালকের কাছে এই দুই বিশেষ মানবিক বিষয়ের শিক্ষক ছিলেন তিনি।

সম্রাট বোস
7890023700

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *