Articles & Blog

Multiple Marriage

Sharing is caring!

——————–বিবাহ বিচ্ছেদ—————–

বিবাহ বিচ্ছেদ এবং বহু বিবাহ এখন স্বাভাবিক ঘটনা। সাম্প্রতিক সময়ে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা বেড়েই চলেছে, তা নিয়ে ভাবা প্রয়োজন।

পারস্পরিক মর্যাদাবোধের অভাবের কারণে স্বামী-স্ত্রী দ্বন্দ্ব সংঘাতে জড়িয়ে যাচ্ছে। স্বামী-স্ত্রী কেউ কাউকে মানতে চায় না। এ ছাড়া পারিবারিক শিক্ষা বলতে গেলে সমাজ থেকে উঠে যাচ্ছে। বাস্তবটা হলো পরিবারে পারিবারিক শিক্ষার অনুশাসনের অভাব। এখন তো বলতে গেলে সংসারে পিতা-মাতা, দাদা-দাদির ঠাই হয় না।

প্রেম ও ভালোবাসার চূড়ান্ত পরিণতি হয় বিবাহ নামক সুন্দর সম্পর্কের মাধ্যমে। পশ্চিমী দেশ তথা অনেক আধুনিক বলে দাবিদার সমাজে বর্তমানে অনেকে বিয়ে না করে যুগ যুগ সময় কাটিয়ে দেয়। তবে এমনও সময় আসে যখন সন্তানের মুখ ও ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে তাদের মধ্যে অনেকে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

জনপ্রিয় ফুটবল তারকা মেসি তাঁর দীর্ঘদিনের প্রেমিকাকে বিয়ে করেছেন যিনি ইতিমধ্যে তাঁর একাধিক সন্তানের জননীও বটে। আর ফুটবলের জনপ্রিয় খেলোয়াড় ম্যারাডোনা তো বাচ্চাদের আব্দার মেটাতে গিয়ে সম্পর্কের অনেক বছর পর বিবাহের পিঁড়িতে বসেন।

আজকে সকালে যখন আমি মর্নিং ওয়ার্ক থেকে ফিরছি ৪ জন লোক আলোচনা করছিলেন টলিউড এর কোন নায়িকা নাকি ৩/৪ টে বিয়ে করেছে, তাদের কাছে অস্বাভাবিক ঘটনা মনে হলেও আমার কাছে একেবারেই অস্বাভাবিক ঘটনা বলে মনে হয়না। সাম্প্রতিক কালে এমন ঘটনা প্রতিদিন ঘটে চলেছে, হয়তো সবাই খবর রাখেন না।

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে ২,৭,১১ ভাব থেকে বিবাহের বিচার করা হয়, আর ৫ ভাব থেকে প্রেমের সম্পর্ক।
৪ ভাব থেকে প্রেমের বিচ্ছেদ বিচার করা হয়ে থাকে। ১,৬,১০,১২ ভাব কোনো মতে ৭ ভাবের সাথে বা ৭ম পতির সাথে যুক্ত হয় তাহলে বিবাহ বিচ্ছেদ হবার সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে যায়।

প্রথম বিবাহ বিচার হয় ৭ ভাব থেকে এরপরের বিবাহ তার ৩য় ভাব মনে 9 ভাবে থেকে। এইভাবে 7,9,11,1,3 পর পর বিয়ের ভাব বিচার করা হয় জ্যোতিষ শাস্ত্রে।

——————–এলিজাবেথ টেইলর—————

একজন ইংল্যান্ডে জন্ম নেয়া ব্রিটিশ-মার্কিন অভিনেত্রী। তিনি তাঁর অভিনয় প্রতিভা ও সৌন্দর্যের জন্য বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য, সেই সাথে তাঁর হলিউড জীবনপদ্ধতির জন্যও; যেমন: অনেকগুলো বিয়ে করা। টেইলরকে হলিউডের স্বর্ণযুগের অন্যতম অভিনত্রী হিসেবে ধরা হয়। তাঁকে তাই বলা হয় জীবনের থেকেও বড় তারকা।

জন্মঃ ২৭ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩২
সময়: সকাল ০২:১৫ am
লন্ডন

টেইলর তাঁর জীবনে সাতজন পুরুষকে মোট ৮বার বিয়ে করেছিলেন:

বৃশ্চিক লগ্ন জেষ্ঠা নক্ষত্র।
১২শে চন্দ্র তুলা রাশি বিশাখা নক্ষত্র।
৭ভাব বৃষ রাশি যেটা শুক্রের ঘর, শুক্রের অবস্থান ৫ ভাবে রাহুর সাথে সহাবস্থান, ৫ভাব ভালোবাসার , প্রেমের।রাহু -শুক্রের কাজ করে চলেছে ওই ৫ ভাবে অবস্থান করে।

বৃহস্পতি ৯ভাবে আর শনি ৩য় ভাবে থেকে সমসপ্তমে। রাহুর দৃষ্টি বৃহস্পতির ওপর আর রাহুর ওপর শনির দৃষ্টি, তাই রাহু এখানে শুক্র, বৃহস্পতি, শনি সকলের অনুঘটকের কাজ করছে।
৭,৯,১১,৩,৫,৭,৯ ভাবের, এগুলো সব গুলোই বিবাহের ভাব। ১,২,৩,৫,৬,৭,৮ আর ৪ নম্বর বিবাহের জন্য মঙ্গল দায়ী, এই মঙ্গল শতভিশা নক্ষত্রে অবস্থিত কুম্ভ রাশিতে, যাহা ১,৭ এবং ৬ ভাবের যোগ সৃষ্টি করেছে, বিবাহ বিচ্ছেদ যোগ।

১★★কনরাড “নিকি” হিলটন (৬ মে, ১৯৫০ শনি/বুধ/শনির দশায় আর বিচ্ছেদ- ২৯ জানুয়ারি, ১৯৫১ শনি/কেতু/রাহুর দশায়)

২★★মাইকেল ওয়াইল্ডিং (২১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫২ শনি/শুক্র/শুক্র দশায় আর বিচ্ছেদ – ২৬ জানুয়ারি, ১৯৫৭ শনি/চন্দ্র/শুক্রর দশায়)

৩★★মাইকেল টড (২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫৭ শনি/চন্দ্র/শুক্রর দশায় আর স্বামী মারা যায় ২২ মার্চ, ১৯৫৮ শনি/বুধ/শুক্রের দশায় )

৪★★এডি ফিশার (১২ মে, ১৯৫৯ শনি/রাহু/শনি দশায় আর বিচ্ছেদ হয় – ৬ মার্চ, ১৯৬৪ বুধ/বুধ/কেতুর দশায়)

৫★★রিচার্ড বার্টন (১৫ মার্চ ১৯৬৪ বুধ/বুধ/কেতুর দশায় আর বিচ্ছেদ – ২৬ জুন ১৯৭৪ বুধ/রাহু/বুধের দশায়)

৬★★রিচার্ড বার্টন (পুনরায বিবা়হ হয় (১০ অক্টোবর, ১৯৭৫ বুধ/রাহু/বুধের দশায় আর বিচ্ছেদ হয়- ২৯ জুলাই, ১৯৭৬ বুধ/বৃহস্পতি/বুধের দশায়)

৭★★জন ওয়ার্নার (৪ ডিসেম্বর, ১৯৭৬ বুধ/বৃহস্পতি/কেতুর দশায় আর বিচ্ছেদ হয় – ৭ নভেম্বর, ১৯৮২ কেতু/চন্দ্র/রাহুর দশায়)

৮★★ল্যারি ফোর্টনেস্কি (৬ অক্টোবর, ১৯৯১শুক্র/রবি/শনির দশায় আর বিচ্ছেদ হয় – ৩১ অক্টোবর, ১৯৯৬ শুক্র/রাহু/কেতুর দশায়)

তার ব্যাপারে একটি দুর্নাম ছিল, তিনি কখনোই সময়ানুবর্তী ছিলেন না, সব কাজেই দেরি করে দেখা দিতেন তিনি। মৃত্যুর আগে তিনি এই একই ধারা বজায় রাখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন। আর তাই নিজের অন্ত্যস্টিক্রিয়াও শুরু হয় ১৫ মিনিট দেরি করে, অর্থাৎ নিজের ফিউনারেলেও দেরি করে এসেছিলেন এলিজাবেথ টেইলর।

টেলরের জন্ম ছকে বৃহস্পতি আর শনির সমসপ্তমে যোগ স্থাপন হয়েছিল। এই শনি আর বৃহস্পতির যোগে মানুষকে অনেক সময় অলস করে দেয়, যে কোনো কাজে তাকে সঠিক সময় পৌঁছাতে দেয় না সেটা বাস্তবে প্রচুর মানুষের কুষ্টিতে দেখা গিয়েছে, তাই টেলরের মৃত্যুর পরেও শেষ কাজেও দেরি করেই সম্পূর্ণ হয়েছিলো।

সম্রাট বোস
7890023700

samrat bose

Even after bagging all such degrees astrologer Samrat Bose still doing a vigorous research on “Astro Bastu” presen

https://www.samratastrology.com

Leave a Reply

Back To Top
shares