Articles & Blog

জীব যোগ।

Sharing is caring!

জীব যোগ।
চন্দ্র আর বৃহস্পতি যোগ

আমার এক জ্যোতিষী দাদার ইচ্ছা আমি “জীব যোগ” নিয়ে লিখি। তাই আজ লিখতে বসলাম।

জীব যোগ নিয়ে বিশেষ কিছু লেখার নেই, তাই হয়তো আমার ওই দাদা বলেছেন লিখতে, যে কাজে চ্যালেঞ্জ নেই সেই কাজে আগ্রহ কমে যায়, কিন্তু উনি আমার প্রথম শিক্ষক বলে কথা, লিখতেই হবে।
বিভিন্ন বই পড়ে আর সব জায়গায় পড়াশোনা করে যা জেনেছি, বা শুনেছি, বা যা যা পোড়ানো হয়েছে আমাকে তাতে এটাই বলা হয়েছে আমাকে,
যাদের জন্ম কুন্ডলীতে চন্দ্র আর বৃহস্পতি একসাথে থাকে তাদের “জীব যোগ” আছে বলা হয়, এবং এই সকল মানুষগুলো ভীষণ ভালো মনের, পবিত্র মনের, সকলের উপকার করেন, সকলের প্রিয় হয়ে ওঠেন, টাকা পয়সার অভাব থাকে না, এই সকল মানুষের দ্বারা সমাজের উপকার হবে বা হয়ে থাকে।

সত্যি তো শ্রী রাম চন্দ্রের কুন্ডলীতে জীব যোগ আছে বা ছিল।
কর্কট লগ্নে চন্দ্র আর বৃহস্পতি।
আমাদের ভগবান রাম চন্দ্র।

কপিল দেব
বৃশ্চিক রাশিতে
৮ম ভাবে চন্দ্র আর বৃহস্পতি
প্রথম বিশ্বকাপ শুধু ওনার জন্যই ভারতের কাছে এসে ১৯৭৫ সালে।

N, C, Lahiri
২য় ভাবে তুলা তে
চন্দ্র আর বৃহস্পতি
আজকে তার দোয়াতে আমরা জ্যোতিষী ভাই বোনেরা কুন্ডলী বানাতে পারছি।

লিওনার্দো দা ভিন্সি
গালিব মির্জা
স্টিভন স্পিলবার্গ
বঙ্কিম চন্দ্র চ্যাটার্জী
লুইস পাস্তুর

আরো অনেক অনেক উদাহরণ দেয়া যেতে পারে যাদের জীব যোগ ছিল এবং তারা পৃথিবীতে নাম, সন্মান, টাকা পয়সা রোজগার করেছেন এবং মানুষের সেবা করে ভালোবাসা কুড়িয়েছেন।

কিন্তু আমি যখন আরো বেশ কিছু কুন্ডলী দেখি তখন আমার পড়াশোনা বা যা যা শিখে এসেছি সব কিছু গোলমাল হয়ে যায়। কোথায় যেনো মনে হয় আমার জানার বা শেখার কিছু বাকি আছে।

চন্দ্রস্বামী:
30/10/1949
00:05am
Alwar
কর্কট লগ্ন
৭ম ভাবে জীব যোগ ছিল।

১৯৯৬-এ ভারতীয় বংশোদ্ভূত লন্ডনের এক ব্যবসায়ী লখুভাই পাঠককে ১ লক্ষ ডলার প্রতারণা করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় চন্দ্রস্বামীকে। ‘পিকল কিঙ্গ’ নামে পরিচিত লখুভাইয়ের দাবি ছিল, ওই টাকা আসলে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী নরসিংহ রাওয়ের জন্য। এবং সে কারণেই তা চন্দ্রস্বামীকে দেওয়া হয়েছিল। যদিও পরে সে মামলায় অভিযোগ থেকে রেহাই মেলে নরসিংহ রাওয়ের। সে সময় একাধিক আর্থিক দুর্নীতিতে নাম জড়িয়ে পড়েন চন্দ্রস্বামী। ইরান-কন্ট্রা অস্ত্র কেলেঙ্কারিতে তাঁর বিরুদ্ধে বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময় আইন (ফেরা) ভাঙার অভিযোগ ওঠে। তবে গডম্যানের জীবনে সবচেয়ে কলঙ্কময় অধ্যায় শুরু হয় বোধহয় ১৯৯৭-এ। রাজীব গাঁধী হত্যা মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনে কংগ্রেস। সে মামলায় জৈন কমিশনের রিপোর্টেও তাঁর জড়িত থাকার অভিযোগের বিষয়টি উল্লেখিত ছিল। সেন্ট কিটস জালিয়াতি মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন তিনি। ষড়যন্ত্র লিপ্ত থেকে তথ্য জালিয়াতি করে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ভি পি সিংহের ছেলে অজেয় সিংহকে ফাঁসানোর অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। ২০০৪-এ অবশ্য সে অভিযোগ থেকে মুক্তি পান চন্দ্রস্বামী।

আরো অনেক অনেক ক্রিমিনাল আছেন যারা সমাজের শত্রু, এদের কিভাবে জীব যোগ কাজ করলো?

আমার গুরুদেব বলেন nothing is permanent, কোনো সূত্র এর ওপর বেশ করে সম্পূর্ণ বিচার করা ঠিক নয়।

আসলে আমি কুন্ডলী গুলো ঘেটে দেখেছি, যাদের জাতচক্রে জীব যোগ অবস্থান করে তাদের মধ্যে 70% মানুষের মন খুব ভালো হয় এবং তারা সমাজে সন্মান পে থাকেন, যদি না খারাপ গ্রহ ওই চন্দ্র আর বৃহস্পতির ওপর প্রভাব ফেলেন। এদের মধ্যে ঠান্ডা লাগার প্রবণতা ভীষণ বেশী থাকে খুব অল্পতেই বুকে সর্দি বোসে যায়।

এই খারাপ আর ভালো প্রভাব গুলো প্রকৃত ভালো জ্যোতিষী দিয়ে বিচার করে নেওয়া দরকার, যদি খারাপ প্রভাব কাটিয়ে ওঠা যায় তাহলে আপনি সমাজের বিশিষ্ট মানুষ হয়ে উঠতে পারবেন।

সম্রাট বোস
7890023700

Leave a Reply

Back To Top
shares